বৃহস্পতিবার, 29 জানুয়ারি 2015 16:45

শিগগিরই নতুন ভূমি কমিশনের বিষয় সংসদে উঠছে : গওহর

কালেরকণ্ঠ ।। খুব শিগগিরই পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনের বিষয়টি সংসদে তোলা হবে এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শান্তিচুক্তি পুরোপুরি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিকবিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী। গতকাল বুধবার সকালে 'পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের অগ্রগতি' শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে এ সভার আয়োজন করা হয়। পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর ঊশৈসিং এমপির সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় (সন্তু) লারমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হক, ভারত প্রত্যাগত শরণার্থীবিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা, ঊষাতন তালুকদার এমপি, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, ফিরোজা বেগম চিনু এমপি উপস্থিত ছিলেন।

সভায় উপস্থিত একাধিক সূত্র জানিয়েছে, পুরো সভায় বেশ হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা করেন সবাই। সভায় সন্তু লারমা পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি ও ভূমি ব্যবস্থাপনাকে ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে স্থানান্তর করে পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নেওয়ার দাবি জানান। বৈঠক শেষে ড. গওহর রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, 'জানুয়ারি মাসে এটা আমাদের তৃতীয় সভা, এর আগে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে এবং ঢাকায়ও আরো দুটি সভা করেছি। আজকের সভায় বিশেষ কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি, এটা মূলত নতুন ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের সঙ্গে কমিশন সদস্যদের পরিচিতিমূলক সভা।'

ড. গওহর আরো বলেন, "চুক্তির সবচেয়ে বড় অংশ হলো ভূমি। আজকে আমরা ভূমির ব্যাপারেই আলাপ করেছি। আশা করছি এখন সব কিছুই হবে। যে 'ক্রিটিসিজম' (সমালোচনা) ও 'ফ্রাসটেশন' (হতাশা) আছে, এটা আমরাও ফিল করি। এ কারণে আমরাও চাই তাড়াতাড়ি করতে; কিন্তু কিছু জটিলতাও আছে। একটা কথা বলতে পারি, আমরা সবাই একসঙ্গে একযোগে কাজ করছি, আমাদের মধ্যে এখন আর কোনো 'ভিন্নতা' নেই।"