সোমবার, 02 অক্টোবর 2017 11:01

পশ্চিমের জেলাগুলোতে লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত জমিতে রোপা আমন চাষ

দৈনিক ইত্তেফাক || পশ্চিমের জেলাগুলোতে চলতি মৌসুমে রোপা আমনের চাষ লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম করেছে। ধানের দাম চড়ে যাওয়ায় চাষি ধান চাষে ঝুঁকেছে।  এবার আবহাওয়া ধান চাষের অনুকূল বলে চাষিরা জানিয়েছেন। এখন চারিদিকে শুধু সবুজের সমারোহ। ধান ক্ষেতগুলো লকলকিয়ে বেড়ে উঠছে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ছয় হাজার ১৬২ হেক্টর বেশি জমিতে রোপা আমনের চাষ হয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যশোর আঞ্চলিক অফিস সূত্রে জানা গেছে, যশোর জেলায় এক লাখ ২৭ হাজার ৫৩৫ হেক্টরে, ঝিনাইদহ ৯৯ হাজার ৩৫৫ হেক্টরে, মাগুরায় ৫৭ হাজার ৮৫০ হেক্টরে, চুয়াডাঙ্গায় ৩৪ হাজার ২৯০ হেক্টরে, মেহেরপুরে ২৫ হাজার ৬৩০ হেক্টর ও কুষ্টিয়া জেলায় ৮৪ হাজার ৩২৭ হেক্টরে রোপা আমন চাষ হয়েছে।

এ অঞ্চল বলতে গেলে প্রাকৃতিক দুর্যোগমুক্ত। শুধু যশোরের কেশবপুর ও মনিরামপুর উপজেলা কপোতাক্ষ নদের উপচে পড়া পানিতে প্লাবিত হয়েছে। অতিবৃষ্টির কারণে কোনো কোনো স্থানে চারা নষ্ট হয়েছিল। চাষিরা নতুন করে বীজতলা তৈরি করে চারা সংকট কাটিয়ে উঠেছে। ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মনোহরপুর গ্রামের চাষি আবুল কালাম আজাদ বলেন, এখন পর্যন্ত ধানের অবস্থা ভালো। আগাম চাষ করা রোপা আমনের শীষ বের হতে শুরু করেছে। অন্য ক্ষেতগুলো থোড় অবস্থায় আছে। তিনি জানান, বাজারে বর্তমানে মোটা ধান ১১শ’ টাকা মণ বিক্রি হচ্ছে। ধান চাষ করে চাষির লাভ থাকছে। এজন্য ধানের চাষ বাড়িয়েছে। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যশোর আঞ্চলিক অফিসের অতিরিক্ত পরিচালক চন্ডি দাস কুন্ডু বলেন, আগাম চাষে রোপা আমন ধানের শীষ বের হতে শুরু করেছে। ২০ দিনের মধ্যে এই ধান উঠতে শুরু করবে বলে তিনি জানান। এ অঞ্চলে আমন ধানের অবস্থা খুব ভালো বলে তিনি জানান।